সড়কে প্রাণ হারালেন ৪ জন
সড়কে প্রাণ হারালেন ৪ জন

সড়কে প্রাণ হারালেন ৪ জন

চারজন নিহত হয়েছেন বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায়। এ সময় আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের বগুড়ার শেরপুরে কলেজ রোডে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন এবং হাজীপুর এলাকায় বাসচাপায় এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন।উপজেলার কলেজ রোড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে, তারা হলেন- আমেনা খাতুন (৫৫) শেরপুরের উলিপুর গ্রামের মৃত আবদুল হামিদ বুলুর স্ত্রী ও ট্রাকচালক হাফিজুল ইসলাম (৩২) লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ গোপাল রায় গ্রামের খয়ের উদ্দিনের ছেলে।

বগুড়ার শেরপুর-ধুনট সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান ও শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার ভোর সোয়া ৪টার দিকে বগুড়া থেকে কলাবোঝাই ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-২২-৯৬৪৫) ঢাকায় যাচ্ছিল। এ সময় ঢাকা থেকে রডবোঝাই একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-২২-৮২৬৫) বগুড়ার দিকে আসছিল।

দুটি ট্রাক ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের বগুড়ার শেরপুরের কলেজ রোড এলাকায় পৌঁছলে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি ট্রাকের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে গিয়ে কেবিনে চালক ও হেলপারসহ ছয়জন আটকা পড়েন।

এতে ঘটনাস্থলে কলাবোঝাই ট্রাকচালক ও হেলপার মারা যান। আহত চারজনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শজিমেক) পাঠালে সেখানে রডবোঝাই ট্রাকচালক মারা যান।

আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে গৃহবধূ আমেনা খাতুন শিশুসন্তানকে স্কুলের গাড়িতে তুলে দিতে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে মহাসড়কের হাজীপুর এলাকায় যান।

তিনি বাচ্চাকে গাড়িতে তুলে দিয়ে বাড়ি ফেরার জন্য মহাসড়ক পার হওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এ সময় ঢাকা ছেড়ে আসা বগুড়াগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।




Published: 2019-09-05 10:55:32