শপথ নিয়েছেন বিএনপির জাহিদুর রহমান
  শপথ নিয়েছেন বিএনপির জাহিদুর রহমান

শপথ নিয়েছেন বিএনপির জাহিদুর রহমান

শীর্ষ নেতারা সংসদে না যাওয়ার কথা বারবার বলে আসলেও বিএনপি থেকে নির্বাচিত ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান শপথ নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে জাহিদুর রহমান শপথ নেয়ার বিষয়ে তার আগ্রহের কথা জানিয়ে স্পিকার শিরীর শারমিন চৌধুরীকে চিঠি দিয়েছেন। সংসদ সচিবালয়ের পরিচালক(গণসংযোগ) তারিক মাহমুদ বৃহস্পতিবার বলেন, উনার শপথের আয়োজন করা হয়েছে। দুপুরেই শপথ হওয়ার কথা।

ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত জাহিদের অনুরোধেই শপথের এ আয়োজন করা হয়েছে বলে সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

 স্পিকারের একান্ত সচিব এম এ কামাল বিল্লাহ গণমাধ্যমকে এ ঘটনার সত্যতা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সংসদ সচিবালয় থেকে দুপুর পৌনে ১২টায় জাহিদুর রহমানের শপথ অনুষ্ঠানের সময় ধার্য করেছেন। তিনি শপথ কক্ষে ঢুকেছেন বলেও জানা গেছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে (পীরগঞ্জ–রানীশংকৈল) তিন সাবেক সাংসদকে হারিয়ে বিএনপির প্রার্থী জাহিদুর রহমান নির্বাচিত হন। রংপুর বিভাগের মধ্যে জাহিদুর রহমানই একমাত্র বিএনপির প্রার্থী, যিনি জয়ী হতে পেরেছেন।

এর আগে বিএনপির দলের অপর এক নীতিনির্ধারক যুগান্তরকে বলেন, দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে দু’জন এমপি শপথ নিতে পারেন আমাদের কাছে এমন তথ্য রয়েছে। এদের মধ্যে একজন এবারই প্রথম নির্বাচিত হয়েছেন। আরেকজন সাবেক প্রতিমন্ত্রী। আমরা তাদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথাও বলেছি। আশা করছি দলের সিদ্ধান্তের বাইরে তারা যাবেন না।]

তিনি বলেন, এমনকি তাদের এলাকার নেতাদের সঙ্গেও হাইকমান্ডের কথা হয়েছে। তারা হাইকমান্ডকে জানিয়েছেন, স্থানীয় প্রতিটি নেতাকর্মী কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে মনে করছেন। তারা সংসদে যাওয়ার জন্য কোনো চাপ দিচ্ছেন না। এলাকার জনগণের চাপ রয়েছে বলে যা প্রচার করা হচ্ছে তা অজুহাতমাত্র। ওই নীতিনির্ধারক আরও জানান, তাদের কাছে খবর আছে বিএনপি থেকে নির্বাচিত কয়েকজনকে সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান (সিলেট-২ আসনে গণফোরাম থেকে নির্বাচিত) ফোন করে সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে উদ্বুব্ধ করার চেষ্টা করছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোকাব্বির খান যুগান্তরকে বলেন, বিএনপি থেকে নির্বাচিত কয়েকজনের সঙ্গে এমনিতে দু-একবার কথা হয়েছে। তারা যাওয়ার জন্য আগ্রহী। এর বেশি তার পক্ষে বলা সম্ভব নয়। শপথ গ্রহণের সময় বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বিশিষ্ট আইনজীবী ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক বুধবার যুগান্তরকে বলন, সংবিধান অনুযায়ী কারও সদস্য পদ শূন্য ঘোষণা করা না করার পুরো এখতিয়ার একমাত্র স্পিকারের। ৯০ কার্যদিবসের মধ্যে কোনো সদস্য শপথ না নিলে তিনিই করণীয় ঠিক করবেন। এক্ষেত্রে স্পিকার নির্বাচিত সদস্যকে শপথ নেয়ার জন্য আারও সময় দিতে পারেন, নাও পারেন।



Published: 2019-04-25 12:27:41